Health & Medical Blog

জেনে নিন কিভাবে রান্না করবেন ঝটপট দই বেগুন


cord-with-eggplant

উপকরণঃ
১. বড় বেগুন ২-৩ টি
২. টক দই আধা কাপ
৩. টমেটো ২ টি
৪. তেল ৬ টেবিল চামচ
৫. পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ
৬. আদা,রশুন বাটা আধা চা চামচ
৭. ধনিয়ার গুড়া আধা চা চামচ
৮. মরিচের গুড়া ১ চা চামচ
৯. হলুদের গুড়া আধা চা চামচ
১০. চিনি আধা চা চামচ
১১. কাচামরিচ ৫-৬ টি
১২.ধনিয়া পাতা কুচি ২ টেবিল চামচ
১৩.লবন পরিমাণ মতো

প্রণালীঃ
প্রথমে বেগুনগুলোকে হলুদ ও লবন দিয়ে মেখে একটি কড়াইয়ে তেল দিয়ে ভাল করে বেগুন সিদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত ভাঁজতে হবে। এরপর বেগুনগুলোকে যে পাত্রে পরিবেশন করবেন সেই পাত্রে তুলে রাখতে হবে। এবার একটি কড়াইয়ে তেল দিয়ে পেঁয়াজ তাতে পেঁয়াজ দিতে হবে। পেঁয়াজ বাদামি হয়ে আসলে আদা,রশুন বাটা দিয়ে আরও কিছুক্ষণ ভাঁজতে হবে। আলাদা একটি বাটিতে টক দইয়ের সাথে মরিচের গুরা,হলুদের গুরা,ধনিয়ার গুড়া ও লবন দিয়ে ভাল করে ফেটে কড়াইয়ে ঢেলে দিয়ে কিছুক্ষণ কসাতে হবে। এরপর টমেটো কুচি ও অল্প পানি দিয়ে আরও কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে। সবশেষে কাঁচামরিচ ও চিনি দিয়ে আরও ২ মিনিট রান্না করে বেগুনের উপর আস্তে আস্তে ঢেলে দিতে হবে। ধনে পাতা দিয়ে সাজিয়ে গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন মজাদার দই বেগুন।

দই বেগুনের স্বাস্থ্যগত উপকারিতা:

আমাদের দৈনন্দিন চাহিদার প্রায় সব কয়টি পুষ্টিমান বেগুনে কমবেশী বিদ্যমান।

  • যাদের রক্তে কোলেস্টেরল বেশি, তারা নিশ্চিন্তে বেগুনখেতে পারেন। কারণ বেগুনে কোনো চর্বি বা কোলেস্টেরল নেই।
  • পাকস্থলী, কোলন, ক্ষুদ্রান্ত্র, বৃহদান্তের ক্যানসারকে প্রতিরোধ করে। যেকোনো ক্ষতস্থান শুকাতে সাহায্য করে বেগুন।
  • রক্তশূন্যতার রোগীরাও খেতে পারে এই সবজি। কারণ বেগুনে আয়রনও রয়েছে, যা শরীরের রক্ত বাড়াতে সাহায্য করে। এতে চিনির পরিমাণ খুবই সামান্য। তাই ডায়াবেটিসের রোগী, হৃদরোগী ও অধিক ওজন সম্পন্ন মানুষদের জন্য বেগুন খুবই একটি উপকারী খাদ্য ।
  • বেগুনে রয়েছে রিব্লোফ্ল্যাভিন নামক উপাদান। এই উপাদান জ্বর হওয়ার পরে মুখ ও ঠোঁটের কোণের ঘা, জিহ্বার ঘা প্রতিরোধ করে। দূর করে জ্বর জ্বর ভাব।
  • বেগুনে Nasunin নামে এক ধরনেরশক্তিশালী phytonutrient and antioxidant রয়েছে বেগুন যা ক্যান্সার প্রতিরোধ করে ।
  • বেগুন ভিটামিন ‘এ’, ‘সি’, ‘ই’ এবং ‘কে’ (ক) সমৃদ্ধ সবজি। ভিটামিন ‘এ’ চোখের পুষ্টি জোগায়, ভিটামিন ‘সি’ ত্বক, চুল, নখকে করে মজবুত। দেহে রক্ত জমাট বাঁধার বিরুদ্ধে কাজ করে ভিটামিন ‘ই’ ও ‘কে’। এই ভিটামিন চারটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বহুগুণে বৃদ্ধি করে।
  • বেগুনে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম, যা দাঁতকে করে মজবুত, দাঁতের মাড়িকে করে শক্তিশালী। নখের ভঙ্গুরতা রোধ করে ।
  • তবে যাদের অ্যালার্জির সমস্যা রয়েছে তাদের  বেগুন পরিহার করা উচিত। বেগুন অধিকাংশ মানুষের অ্যালার্জি বাড়িয়ে দেয়।

সেই সাথে মজাদার এই খাবারে রয়েছে দই যা আমাদের হজমে ও কোলেস্টোরেল কমাতে সাহায্য করে।

Any unauthorized use or reproduction of Blog.emedicalpoint.com content for commercial purposes is strictly prohibited and constitutes copyright infringement liable to legal action.@emedicalpoint 

Date : 10th November, 2015

(Visited 339 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *